অনলাইন ইনকামফ্রিল্যাসিং

ফেসবুক থেকে টাকা আয় করার উপায়- online taka income 2023

ফেসবুক থেকে টাকা আয় করার কথা কি আপনি কখনো ভেবে দেখেছেন? হ্যা ফেসবুক থেকে টাকা ইনকাম কারা সম্ভব। আর বর্তমানে তো আরো সুযোগ বেরে গেছে টাকা ইনকাম এর।

আমাদের সবার মনে মাঝে মাঝে এমন চিন্তা হয় যে আমরা নিজেরাই বুঝতে পারি না। যেমন এমন কি কোন উপায় আছে যে বসে বসে ইনকাম করা যাবে?

বা এমন হলে কেমন হতে যে আমরা শুয়ে আছি আর আমাদের ইনকাম হচ্ছে? নিশ্চয়ই খারাপ হয় না, কিন্ত এটা সম্ভব নয়। টাকা ইনকাম করতে চাইলে তো কাজ করতেই হবে।

কিন্তু আমি আজ যে উপায় বলবো তা অনেকটাই শুয়ে বসে ইনকাম করার মতোই বটে।

আপনি দিনে নিজের অজান্তেই কতটা সময় ফেসবুক কে দিচ্ছেন তা আগে জেনে নিন।

আপনার মোবাইল এর digital wellbeing এ গিয়ে দেখুন আপনি হয়তো দিনের 2-4 ঘন্টা সময় দিচ্ছেন ফেসবুক এ সুধু এটা জানার জন্য যে আপনার কোন বন্ধ কই গেছে, কি করছে ইত্যাদি।

বর্তমান সময়ে কয়েক টা জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এর মধ্যে ফেসবুক একটা।

প্রায় সব সোস্যাল মিডিয়া থেকেই কম বেশী ইনকাম করা যায়। এখন প্রশ্ন হচ্ছে ফেসবুক থেকে ও কি টাকা ইনকাম ইনকাম করা যায়? ( online taka income 2023 )

হ্যা ফেসবুক 2023 সালে এসে বেশ কিছু ইনকাম এর সুযোগ খুলে দিয়েছে। গত কিছু দিন এ ফেসবুক এ প্রচুর আপডেট এসেছে। ফেসবুক এখন সবাইকেই টাকা ইনকাম সম্ভব করে দিয়েছে।

আপনি এখন চাইলেই ফেসবুক কে ব্যাবহার করে ইনকাম করতে পারবেন। আজকে আমি আলোচনা করবো কিভাবে ফেসবুক থেকে 2023 সালে ইনকাম করা যায়।

সোস্যাল মিডিয়া ব্যবহার করি না বা বিশেষ করে ফেসবুক ব্যবহার করি না এমন মানুষ ভারতবর্ষে খুঁজে পাওয়া যাবে না বললেই চলে। সবাই কোন না কোন সোস্যাল মিডিয়ার সাথে যুক্ত। এখন তো সোস্যাল মিডিয়ার এক অন্য রুপ ধারন করেছে। বাচ্চা থেকে বুরো সবাই সোস্যাল মিডিয়ায় মগ্ন।

আপনারা জানেন যে ফেসবুক চলে তার ব্যবহার কন্টেন্ট এর মাধ্যমে। তাই ফেসবুক তাদের অডিয়েন্স দেরকে ইনকাম করার আরো বেশী সুযোগ করে দিয়েছে। তাহলে চলুন জেনে নেই ফেসবুক থেকে ইনকাম করার উপায় সম্পর্কে।

এখন ফেসবুক থেকে টাকা আয় করার উপায় – online income bd

খুব সহজেই ফেসবুক থেকে টাকা ইনকাম করার বেশ কিছু উপায় রয়েছে। আজ আমি এই আর্টিকেল এ সেই উপায় গুলো এক এক করে বলে দিব। যাতে করে আপনিও ফেসবুক থেকে ইনকাম শুরু করে দিতে পারেন। তো চলুন শুরু করা যাক।

ফেসবুক পেজ থেকে কিভাবে ইনকাম করা যায়? (Taka income apps 2023)

আপনরা অনেকেই হয়তো জানেন যে ফেসবুক পেজ থেকে long term ভালো ইনকাম করা যায়। আপনি চাইলেই এখনই একটা পেজ গুলে ইনকাম শুরু করে দিতে পারেন। তবে পেজ খুলতে হবে নিয়ম মেনে। ফেসবুক পেজ খুলে কিছু নিয়ম আছে ওগুলো মেনে ভিডিও তৈরি করলেই হবে।

আপনি এবার আপনার খোলা সেই ফেসবুক পেজ এ নিয়মিত ভিডিও কন্টেন্ট বা ছবি নিয়মিত পোস্ট করে যাবেন। আপনার আপলোড করা সেই সব ভিডিও আপনার বন্ধু বান্ধব সবার কাছে শেয়ার করতে থাকুন। এভাবে যখন আপনার পেজে ফলোয়ার বেরে যাবে watch time বেরে যাবে তখন আপনার সামনে ইনকাম করার সুযোগ তৈরি হবে।

আপনার পেজে যখন ফলোয়ার বেরে যাবে তখন আপনি অ্যাফিলিয়েট এর মধ্যেমে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। যে ধরনের কন্টেন্ট আপনি আপনার পেজে আপলোড করছেন সেই রিলেটেড যেসব কোম্পানি আছে তার প্রোডাক্ট বিক্রি করে কমিশন নিতে পারেন।

আপনার কন্টেন্ট রিলেটেড কোম্পানির থেকে sponsorship নিয়ে ইনকাম করতে পারেন। sponsorship থেকে ভালো পরিমাণ টাকা ইনকাম করা সম্ভব।

পেজ তৈরি ও কন্টেন্ট আপলোড করার আগে সেই সম্পর্কে একটা perfect প্ল্যান করে নিতে হবে। কোন নিশ নিয়ে কাজ করবেন বা কোন ধরনের কন্টেন্ট প্রমোট করবেন। ইত্যাদি বিষয় গুলো ভালো করে ভেবে নিবেন। আমি এই আর্টিকেল এ এই বিষয়ে বিস্তারিত বলছি না। কারণ আজকের আর্টিকেল এর উদ্দেশ্য ফেসবুক থেকে কি কি উপায়ে ইনকাম করা যায় তা জানানো।

আপনার পেজে যখন 30 হাজার ফলোয়ার হয়ে যাবে তখন আপনি আপনার ভিডিও মনিটাইজড করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। আপনার ভিডিও গুলো যদি ভালো হয় তা হলে আপনার ফেসবুক এ 30 হাজার ফলোয়ার হয়ে যাবে। এটা কোন ব্যাপার না। পেজ মনিটাইজড হয়ে গেলে ফেসবুক থেকে ইনকাম আসতে থাকবে।

তাছাড়া আপনার ফেসবুক পেজ এ যদি ফলোয়ার থাকে তাহলে পেজ বিক্রি করে দিয়েও ইনকাম করতে পারেন।

 

ফেসবুক এ ড্রপ শিপিং করে ইনকাম:ফেসবুক থেকে টাকা আয় 

ড্রপ শিপিং করে অনেকেই অনেক টাকা ইনকাম করছে। ড্রপ শিপিং নিয়ে বিস্তারিত একটা ব্লগ এ আলোচনা করবো। আজকে ফেসবুক মার্কেট প্লেস এ ড্রপ শিপিং করে টাকা ইনকাম করার উপায় সম্পর্কে বলবো।

ফেসবুক মার্কেট প্লেস একটা সার্ভিস যার মাধ্যম এ আপনি যে কোন প্রোডাক্ট বিক্রি করতে পারেন। আপনি যা করবেন তা হলো প্রথম এ google play Store থেকে বেশ কিছু এমন অ্যাপ ডাউনলোড করবেন যেখানে পুরোনো প্রোডাক্ট বিক্রি হয়। এর পর সেই অ্যাপ এ রেজিস্ট্রেশন করে নিবেন।

এই অ্যাপ এ বিভিন্ন ধরনের প্রোডাক্ট পেয়ে যাবেন। ওগুলোর ফটো ডাউনলোড করে নিবেন। তার পর সেই ছবি দিয়ে ফেসবুক মার্কেট প্লেস এ লিস্টেড করবেন। লিস্ট করার সময় অবশ্যই একটু বেশি দাম দিয়ে দিবেন।

ধরে নিন আপনি একটা শার্ট বিক্রি করছেন। এখন শার্টের দাম যদি 200 হয় তা হলে আপনি ফেসবুক 300 টাকা দিয়ে লিস্ট করবেন। আপনার লাভ হবে 100 টাকা।

এভাবে আপনি অনেক গুলো প্রোডাক্ট আপনার ফেসবুক স্টোর এ লিস্ট করে রাখবেন। যখনই কেউ সেই প্রোডাক্ট কিনবে তখন তার ঠিকানা সেই অ্যাপ এর ডেলিভারি আপশনে সেট করে দিবেন। ব্যাস হয়ে গেল। ফেসবুক এ প্রোডাক্ট বিক্রি করে 100 টাকা লাভ আবার যে কোম্পানির পোডাক্ট বিক্রি করলেন তার থেকেও কমিশন পাবেন। সব মিলিয়ে ভালো অঙ্কের টাকা কিন্তু আপনি ফেসবুক থেকে ইনকাম করতে পারেন।

 

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে টাকা ইনকাম : ফেসবুক থেকে টাকা আয়

ফেসবুক থেকে টাকা ইনকাম করার জন্য আরেকটা জনপ্রিয় উপায় হলো অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে ইনকাম।

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং কি তা না জানেন তাহলে সংক্ষেপে আমি বলে দিচ্ছি, অ্যাফিলিয়েট হলো অন্য কোন কোম্পানির বা কোন প্রতিষ্ঠান এর প্রোডাক্ট বা সার্ভিস বিক্রি করে দেওয়া। তখন আপনি তাদের প্রোডাক্ট বা সার্ভিস বিক্রি করে দিবেন তখন আপনাকে নির্দিষ্ট এমাউন্ট বা শতাংশ আপনাকে কমিশন দিবে। এটাকে বলে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং।

বিশ্বের অনেক বড় বড় কোম্পানি তাদের প্রোডাক্ট অ্যাফিলিয়েট মার্কেটার দিয়ে বিক্রি করে থাকে। আপনি চাইলেই কিছু নিয়ম মেনে তাদের অ্যাফিলিয়েট এ জয়েন হয়ে টাকা ইনকাম করতে পারেন।

আপনি আপনার ফেসবুক এ যে ধরনের কন্টেন্ট পোস্ট করছেন সেই ক্যাটাগরির প্রোডাক্ট সিলেক্ট করবেন। তার পর তার অ্যাফিলিয়েট লিঙ্ক আপনি আপনার ফেসবুক প্রোফাইল এ বা পেজে শেয়ার করবেন। কেউ যদি সেই লিংক থেকে পোডাক্ট কিনে তা হলে আপনি কমিশন পাবেন। আপনার যদি বেশ কিছু ফলোয়ার থাকে তা হলে আপনি অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে প্রচুর টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

 

 

ফেসবুক অ্যাড কে ব্যাবহার করে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং: ফেসবুক থেকে টাকা আয়

আপনার কাছে যদি ইনভেস্ট করার মতো কিছু টাকা থাকে তাহলে আপনি ফেসবুক অ্যাড কে ব্যাবহার করে খুব কম সময়ে অনেক বেশী টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

এর আগে ফেসবুক কে ব্যাবহার করে টাকা ইনকাম এর যে উপায় গুলো বললাম সেগুলোর জন্য কোন টাকা পয়সার দরকার হবে না। তবে ফেসবুক অ্যাড কে ব্যাবহার করে ইনকাম করার জন্য আপনার ইনভেস্ট করতে হবে। এবং রিস্ক নিতে হবে।

ফেসবুক একটা বিশাল ট্রাফিক সোর্স। এখানে অনেক অনেক অ্যাক্টিভ user আছে। আর আপনি হয় তো জানেন যে যেখানেই ট্রাফিক সেখানেই কাস্টমার। আপনার ঠিক সেই সুযোগ টাকেই কাজে লাগাতে হবে।

এর আগের পয়েন্ট এ বলা উপায়ে আপনি যদি অ্যাফিলিয়েট লিংক আপনার ফেসবুক এ শেয়ার করেন তা হলে কিছু মানুষ সেই লিংক এ ডুকবে কিন্তু কিনবে না। বা কিছু মানুষ হয় তো কিনবে।

তবে আপনি যদি সেই পোস্ট কে ফেসবুক অ্যাড ব্যাবহার করে লক্ষ্য লক্ষ্য মানুষের কাছে পৌঁছানো যায়। তাহলে অনেক বেশী সেল পাওয়া যাবে। এবং আপনার ইনকাম অনেক গুন বেড়ে যাবে।

আপনি হয়তো এতক্ষণে বুঝে গেছেন যে ফেসবুক অ্যাড কে সঠিক ভাবে ব্যাবহার করে কত কত টাকা ইনকাম করা সম্ভব। আপনি চাইলে ফেসবুক অ্যাড কে ব্যাবহার করে CPA মার্কেটিং করতে পারেন।

অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করার উপায়

ফেসবুক এ ভিডিও থেকে ইনকাম: online income bd

হ্যা, youtube এর মতো ফেসবুক এ ভিডিও আপলোড করেও টাকা ইনকাম করা যায়। youtube এ যেমন ভিডিও আপলোড করতে হয় এবং 1000 সাবস্কাইবার আর 4k ঘন্টা watch time  হলে ইনকাম এর জন্য প্রস্তুত হয়ে যায় ঠিক তেমনি ফেসবুক এর ও কিছু নিয়ম আছে যেগুলো পূরণ করলেই ফেসবুক ভিডিও থেকে ইনকাম করা শুরু হয়ে যায়।

ফেসবুক ভিডিও থেকে ইনকাম এর জন্য শর্ত গুলো হলো:-

  1. মিনিমাম 10k follower
  2. 250 weekly returning viewers
  3. মিনিমাম 50k পোস্ট engagement
  4. মিনিমাম 180k মিনিট ভিডিও ভিউ

আগে ফেসবুক ভিডিও থেকে ইনকাম করার জন্য একটা ফেসবুক পেজ থাকতে হতো। ফেসবুক পেজ এ ভিডিও আপলোড করে 30,000 মিনিট watch time আর 10,000 লাইক হলে ভিডিও থেকে ইনকাম আসার জন্য উপযুক্ত হতো।

তবে এখন আপনার আর পেজ এর দরকার হবে না। আপনার প্রোফাইল থেকে ইনকাম করতে পারবেন। তার জন্য আপনার প্রোফাইল প্রফেশনাল অন করে নিবেন।

More:

best 10 online income apps 2023

ফেসবুক রিল থেকে টাকা ইনকাম: online income bd from Facebook reels

হ্যা, এখন আপনি ফেসবুক এ ও রিলস আপলোড করতে পারবেন। শুধু তাই না সেখান থেকে ইনকাম ও করতে পারবেন। টিকটক বা ইস্টাগ্রাম এর মতো ফেসবুক ও রিলস আপশন চালু করেছে গত আপডেট এর মাধ্যমে। আমাদের সবার reels ভিডিও অনেক বেশী ভালো লাগে। এখন থেকে আপনিও অন্যের reels না দেখে নিজেও ইনকাম করতে পারবেন।

ফেসবুক ভিডিও’র মতো ফেসবুক রিলস এ অ্যাড দেখাবে এবং সেখান থেকে ইনকাম আসবে।

আপনি আপনার ফেসবুক প্রোফাইল প্রফেশনাল করার পরে দেখবেন একটা রিলস নামের অপশন চালু হয়ে গেছে।

রিলস থেকে টাকা ইনকাম এর জন্য কি কি নিয়ম মানতে হবে?

  • নিজের তৈরি রিলস হতে হবে।
  • Copyright free মিউজিক ব্যাবহার করতে হবে।

আপনার নিজের কোন রিলস না থাকলে আপনি tik tok বা instagram থেকে ডাউনলোড করে নিবেন। এর পর ঐ ভিডিও রিলস থেকে মিউজিক সরিয়ে Copyright free মিউজিক ব্যাবহার করবেন। ব্যাস আপনার reels ইনকাম করার জন্য রেডি।

More:

bangladeshi app per day 1000 taka income payment bkash

ফেসবুক কে ব্যাবহার করে ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম: ফেসবুক থেকে টাকা আয়

আমি জানি আমাদের বেশীরভাগই ছাত্র। আমরা দিনের অনেকটা সময় কাটাই ফেসবুকে । কিন্তু ফেসবুক কে ব্যাবহার করে যে ফ্রিল্যান্সিং করা যায় এটা হয়তো অনেকেই জানেন না। ফেসবুক মার্কেটিং ম্যানেজার হিসেবে ফাইবার বা আপওয়ার্ক এ জব করে টাকা ইনকাম শুরু করতে পারেন।

যেহেতু আপনাকে ফেসবুক পেজ পরিচালনার দায়িত্ব পালন করতে হবে তাই আপনাকে ফেসবুক পেজ কি ভাবে চালাতে হয়। ফেসবুক অ্যাড কি ভাবে রান করাতে হয় এ সম্পর্কে জানতে হবে।

এগুলো খুব কঠিন বিষয় না, বিশেষ করে তাদের জন্য যারা ফেসবুক এ অভ্যস্ত। মেটা মার্কেটিং এর একটা কোর্স করলেই এ সম্পর্কে ধারনা পাওয়া যায়।

More: বাংলাদেশী টাকা ইনকাম অ্যাপ

আমাদের সাজেশন:

আপনি যদি সত্যিই ফেসবুক থেকে ইনকাম করতে চান তাহলে আমার মনে হয় আপনার একটা কোর্স করে বিস্তারিত নলেজ নিয়ে কাজ শুরু করা উচিত।

এর জন্য আমার মতে সব থেকে ভালো হয় যদি আপনি Facebook marketing এর একটা কোর্স করতে পারেন। বাংলাদেশের জন্য সব থেকে ভালো ফেসবুক মার্কেটিং এর কোর্স হচ্ছে 10 minute School এর ফেসবুক মার্কেটিং অনলাইন কোর্স।

আপনারা হয়তো জানেন যে আয়মান সাদিক একজন ভালো মার্কেটার। তার কাছ থেকে শিখতে পারা অনেক ভালো বলে আমি মনে করি।

আপনার কাছে যদি টাকা থাকে তাহলে এই কোর্স করে দেখুন।

কোর্সের দাম: 1250 টাকা

“FB890” এই কুপোন কোড ব্যবহার করে 890 টাকায় নিতে পারবেন।

কোর্স নিতে এই লিঙ্ক এ ক্লিক করুন-

CLICK HERE

কোর্স সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য:

ফেসবুক থেকে টাকা আয় করার উপায়

এই কোর্সটা আপনাকে কিভাবে সহযোগিতা করবে? / এই কোর্স কাদের জন্য?

 

  • যারা নিজেই নিজের ব্যবসার জন্য কনটেন্ট বানিয়ে সেলস রেভিনিউ বাড়াতে চান।
  • যারা অফিসের প্রয়োজনে ফেসবুক মার্কেটিং শিখে বসের কাছে নিজের দক্ষতা প্রমাণ করতে চান কিংবা প্রমোশন পেতে চান।
  • যারা সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং ও ডিজিটাল মার্কেটিং-এ আগ্রহী।
  • যে সকল কনটেন্ট ক্রিয়েটর ফেসবুকে নিজেদের অডিয়েন্স তৈরি করতে চান কিংবা ফ্যানবেইজ বাড়াতে চান।
  • ফেসবুকের মাধ্যমে পারসোনাল ব্র্যান্ডিং করতে চান।
  • যারা জানতে চান ফেসবুক তথা সোশ্যাল মিডিয়ার জন্য টেন মিনিট স্কুল কিভাবে কনটেন্ট ক্রিয়েট ও প্রমোট করে থাকে।
  • হাইলি সাকসেসফুল এবং দেশজুড়ে তুমুল জনপ্রিয় কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের দীর্ঘদিনের অর্জিত অভিজ্ঞতা থেকে যারা শেখার সুযোগ পেতে চান।

 

যেভাবে এই কোর্সটি আলাদা?

  • এই কোর্স-এর সকল উদাহরণ ও কেসস্টাডি বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে দেয়া হয়েছে যাতে করে আপনার জন্য এই কোর্সটি আরো সহজবোধ্য, প্রাসঙ্গিক আর স্মরণীয় হয়ে ওঠে।
  • এ কোর্সে ফেসবুক মার্কেটিংয়ের খুটিঁনাটি ছাড়াও দেখানো হয়েছে মোবাইল দিয়ে গ্রাফিক ডিজাইন, মোবাইল ফটোগ্রাফি, মোবাইল ভিডিওগ্রাফি এবং মোবাইল দিয়ে ভিডিও এডিটিংয়ের বেসিকস্।
  • এই কোর্সের ইন্সট্রাকটররা স্বনামধন্য ফেসবুক ইনফ্লুয়েন্সার, যারা নিজেদের ফেসবুক মার্কেটিং-এর দক্ষতা ও অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে ইতোমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়াতে হয়েছেন তুমুল জনপ্রিয়, এবং বাস্তবজীবনে হয়েছেন অনুকরণীয়, সফল!

 

এই কোর্সে কি কি আছে?

  • ৩৬টি ভিডিও
  • ৩৬টি নোট
  • ৭ সেট কুইজ

 


এই কোর্সের অভিজ্ঞ শিক্ষকমণ্ডলী কারা কারা?

Ayman Sadiq
Sadman Sadik

 

#Topic:ফেসবুক থেকে টাকা আয়

এই আর্টিকেল এর মূল উদ্দেশ্য ছিল কিভাবে ফেসবুক থেকে টাকা আয় করা যায় যা জানানো। জানি না কতটা সফল হয়েছি। কমেন্ট করে আপনার মতামত জানাবেন।

ধন্যবাদ ❤

Related Articles

Back to top button